বাংলাদেশ , শুক্রবার, ৫ জুন ২০২০

ত্রাণ চোরদের বিরুদ্ধে সরকারের জিরো টলারেন্স

প্রকাশ: ২০২০-০৪-১৮ ০৭:৫২:৪৬ || আপডেট: ২০২০-০৪-১৮ ০৭:৫২:৪৬

অনলাইন রিপোর্ট : করোনা সঙ্কট কাটাতে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে সরকার। নানাভাবে সরকারী সাহায্য সহযোগিতা মানুষের কাছ পৌঁছে দিতে স্থানীয় সরকার কাঠামোকে কাজে লাগানো হচ্ছে। কিন্তু কোন কোন জায়গায় সরকারী সাহায্য চুরির অভিযোগ উঠছে ইউপি চেয়ারম্যান এবং সদস্যদের বিরুদ্ধে। সংখ্যাটি হাতেগোনা হলেও মানব জাতির এই দুঃসময়ে যারা এমন অপরাধ করছে তাদের বিরুদ্ধে শূন্য সহিঞ্চুতার নীতি ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। স্থানীয় সরকারে তো নয়ই জায়গা হবে না দলেও।

কোথাও কোথাও সরকারী সাহায্য চুরির অভিযোগ উঠেছে ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের বিরুদ্ধে।
তাৎক্ষণিক ব্যবস্থাও নেয়া হয়েছে।
সাধারণ মানুষ মনে করছে সরকারের কঠোর নীতি তাদের জীবন বাঁচাবে।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় সাময়িকভাবে যাদের বহিষ্কার করেছে তাদের সম্পর্কে খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে কোন না কোন অনিয়মের সঙ্গে জড়িত এসব চেয়ারম্যান মেম্বাররা। সাধারণ মানুষ মনে করছে সরকারের এই কঠোর নীতি বাঁচাবে তাদের। ত্রাণ বিতরণে নানামুখী অনিয়মের অভিযোগে দেশের ৫টি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করেছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়। পৃথকভাবে প্রত্যেকের খোঁজ নিয়ে অনিয়মের সঙ্গে জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেছে। এছাড়া আরও সাত জন ইউনিয়ন পরিষদ সদস্যকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

ট্যাগ :