বাংলাদেশ , রোববার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১

পিতাকে পাগল সাজিয়ে ছেলে কর্তৃক সর্বস্ব আত্মসাতের অভিযোগ

প্রকাশ: ২০২০-১২-১৪ ১৮:২৯:১৯ || আপডেট: ২০২০-১২-১৪ ১৮:২৯:১৯

নাছির উদ্দিন পিন্টু, ঈদগাঁও : পিতাকে পাগল সাজিয়ে ছেলে কর্তৃক সর্বস্ব আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে প্রতিকার চেয়ে ছেলে নুর মোহাম্মদের বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ভূক্তভোগী বাবা ইসমাঈল সওদাগর। ঘটনাটি ঘটেছে কক্সবাজার সদর উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়নের উত্তর পালাকাটা গ্রামে।
অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, গত ২০১৪ সালের ৩১ মার্চ সকাল আনুমানিক ৮টার দিকে নুর মোহাম্মদ টমটম শো-রুম থেকে তার বৃদ্ধ পিতাকে ধরে নিয়ে বাড়ীতে আটকে রাখে। পরে তার বাড়িতে একজন পল্লী ডাক্তার ডেকে নিয়ে পাগলের বাহনা দিয়ে বাবাকে ইনজেকশন দিয়ে প্রায় ১৮ ঘন্টা অজ্ঞান করে রাখেন তার পুত্র। শুধু তাই নয় একই বছরের ১১ সেপ্টেম্বর নুর মোহাম্মদ তার বাবাকে মাদক নিরাময় কেন্দ্র নোঙরে নিয়ে মাদকাসক্ত বলে মিথ্যা বাহনা দিয়ে ভর্তি করান। পরে সেখান থেকে গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে। এ ছাড়াও পুত্রবধুকে ধর্ষণের অভিযোগ এনে আমার বাবার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে বাড়ী ছাড়া করেন। এই সুযোগে পুত্র নুর মোহাম্মদ টমটমের শো-রুমের গাড়ি বিক্রি করে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ করেন।

ইসমাইল সওদাগর আরো বলেন, এর পরবর্তী ক্রয়কতৃ মেহেরঘোনাস্থিত বসত ভিটা হইতে জোর পূর্বক ৩০ (ত্রিশ) কড়া জমি কাঁড়িয়া নেয়। উক্ত জায়গা ১৩,০০,০০০/-(তের লক্ষ) টাকা দিয়ে মাস্টার ছানা উল্লাহকে বিক্রি করে দেয়। ইতিপূর্বে বিগত বছরে আমার আরেক ছেলে সৌদি আরবে গাড়ি এক্সিডেন্ট করে মারা যায়। সৌদি সরকার আমার মৃত ছেলেকে ৩২,০০,০০০/-(বত্রিশ লক্ষ) টাকা ক্ষতি পূরণ দেয়। উক্ত টাকা উত্তোলনের জন্য তার মামা জাফর আলমকে বিগত ২৪/০৪/২০১৩ইং তারিখে ক্ষমতা হস্তান্তর করি। উক্ত টাকা পার্শ্বোক্ত বিবাদীর যোগসাজসে সম্পূর্ণ টাকা আত্মসাৎ করে ফেলে।

বর্তমানে আমার বসত ভিটা পালাকাটায় জোর পূর্বকভাবে আমার বসতভিটাও দখল করে রাখে। উক্ত বসত ভিটাতে আমাকে বসতী করতে দিচ্ছে না এবং বিক্রিও করতে দিচ্ছে না। পার্শ্বোক্ত বিবাদী আমাকে হত্যা করবে, গুম করবে বিভিন্ন ধরণের মিথ্যা মামলায় জড়াইবে এই বলিয়া হুমকি-ধমকি দিচ্ছে। এই ব্যাপারে কয়েক বার শালিশী বৈঠক হলেও সে এলাকার মেম্বার, চেয়াম্যানের বিচারে আচারে কোন ধরণের তোয়াক্কা করেনা। প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

ট্যাগ :